Advertisement

যৌথমূলধনী কোম্পানির আর্থিক বিবরণী

যৌথ মূলধনী কোম্পানির আর্থিক বিবরণী অনেকটা একমালিকানা ব্যবসায়ের আর্থিক বিবরণীর মতোই যা তোমরা ১ম পত্রের ১০ অধ্যায়ে করেছো বা ৯-১০ থেকেই করে আসছো। তবুও কিছুটা ব্যাতিক্রম তো রয়েছেই। এই টপিক থেকে প্রায় প্রতিবছরই প্রশ্ন করা হয়। চলো তাহলে শুরু করা যাক, ভালো করে পড়ে নাও...

যৌথ মূলধনী কোম্পানি


একমালিকানা ব্যবসায়ে আমরা বলি "মালিকানাস্বত্ব" কিন্তু কোম্পানি ব্যাবসায়ে এই মালিকানাস্বত্বকে বলা হয় "শেয়ারহোল্ডারদের স্বত্ব"। আমেরিকান হিসাববিজ্ঞান অনুসারে শেয়ারহোল্ডারদের স্বত্ব হিসাবসমূহকে ২ ভাগে ভাগ করা যায়। যথাঃ পরিশোধিত মূলধন হিসাব ও জমাকৃত মুনাফা হিসাব।
পরিশোধিত মূলধনের আবার ২ টি অংশ রয়েছে। যেমনঃ–
১. শেয়ার মূলধন (সাধারণ শেয়ার মূলধন ও অগ্রাধিকার শেয়ার মূলধন)
২. অতিরিক্ত পরিশোধিত মূলধন ( লিখিত মূল্যের অতিরিক্ত পরিশোধিত মূলধন, ট্রেজারি স্টক হতে পরিশোধিত মূলধন)

পরিশোধিত মূলধন (Paid in Capital) কে প্রদত্ত মূলধন (Contributed Capital) এবং জমাকৃত মূলধন ( Retained Earnings) কে অর্জিত মূলধন (Earned Capital) বলে।

কোম্পানি কতৃক ইস্যুকৃত নিজ শেয়ার বাজার থেকে পুনঃক্রয় করে নিলে, ক্রীত নিজ শেয়ারকে ট্রেজারী শেয়ার বলে।

ক্রীত নিজ শেয়ার পরবর্তীতে বিক্রয় করার সময় ক্রয় মূল্যের চেয়ে বেশি দামে বিক্রয় করা গেলে অতিরিক্ত অংশকে " ট্রেজারি স্টক হতে পরিশোধিত মূলধন" বলা হয়।

কোম্পানির লেনদেন বিশ্লেষণঃ

১. পূর্ণ পরিশোধিত হিসেবে প্রতিটি ১০০ টাকার ৫০০ টি শেয়ার বিলি করা হলো।

বিশ্লেষণঃ
এই লেনদেনের ফলে নগদ নামক সম্পত্তি বৃদ্ধি পায় ৫০,০০০ টাকা এবং শেয়ার মূলধন নামক শেয়ারহোল্ডারদের স্বত্ব বৃদ্ধি পায় ৫০,০০০ টাকা।

২. প্রতিটি ১,০০০ টাকা মূল্যের ২০ টি বন্ড বিলি করা হলো।

বিশ্লেষণঃ
এর ফলে নগদ নামক সম্পত্তি বৃদ্ধি পায় ২০,০০০ টাকা এবং প্রদেয় বন্ড নামক দায় বৃদ্ধি পায় ২০,০০০ টাকা।

৩. অন্য কোন কোম্পানির শেয়ার ক্রয় করা হলো ২৫,০০০ টাকায়।

বিশ্লেষণঃ
শেয়ার বিনিয়োগ নামক সম্পত্তি বৃদ্ধি পায় ২৫,০০০ টাকা এবং নগদ নামক সম্পত্তি হ্রাস পায় ২৫,০০০ টাকা।

৪. নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করা হলো ৬,০০০ টাকা।

বিশ্লেষণঃ
এই লেনদেন দ্বারা জমাকৃত মুনাফা নামক শেয়ারহোল্ডারদের স্বত্ব হ্রাস পায় ৬,০০০ টাকা এবং প্রদেয় লভ্যাংশ নামক দায় বৃদ্ধি পায় ৬,০০০ টাকা।

৫. শেয়ার লভ্যাংশ ঘোষণা করা হলো ১০,০০০ টাকা।

বিশ্লেষণঃ
জমাকৃত মুনাফা নামক শেয়ারহোল্ডারদের স্বত্ব হ্রাস পায় ১০,০০০ টাকা এবং শেয়ার মূলধন নামক শেয়ারহোল্ডারদের স্বত্ব বৃদ্ধি পায় ১০,০০০ টাকা।

৬. পূর্বে ঘোষিত নগদ লভ্যাংশ পরিশোধ করা হলো ৬,০০০ টাকা।

বিশ্লেষণঃ
নগদ নামক সম্পত্তি হ্রাস পায় ৬,০০০ টাকা এবং প্রদেয় লভ্যাংশ নামক দায় হ্রাস পায় ৬,০০০ টাকা।

জমাকৃত মুনাফা বিবরণী নির্ণয়ঃ

আমেরিকান হিসাববিজ্ঞানে সমাপ্ত হিসাবকালে জমাকৃত মুনাফা পরিবর্তন সংক্রান্ত তথ্য প্রদর্শনের জন্য যে বিবরণী প্রস্তুত করা হয় তাই জমাকৃত মুনাফা বিবরণী।

প্রারম্ভিক জমাকৃত মুনাফা ***
যোগঃ চলতি বছরের নীট আয় ***

বাদঃ নগদ লভ্যাংশ ***
বাদঃ শেয়ার লভ্যাংশ ***

সমাপনী জমাকৃত মুনাফা—

বিঃদ্রঃ শেয়ারহোল্ডারদের স্বত্ব বিবরণী প্রস্তুত করা হলে জমাকৃত মুনাফা বিবরণী প্রস্তুত করার প্রয়োজন হয় না।

অলীক সম্পদঃ
সনাতন হিসাববিজ্ঞানে কিছু কিছু বড় ধরণের খরচকে (যেমনঃ প্রাথমিক খরচাবলি, ঋণপত্রের অবহার, শেয়ার অবহার, লাভ-ক্ষতি হিসাবের ডেবিট জের ইত্যাদি) খরচ হিসেবে গন্য না করে সম্পত্তি হিসেবে প্রদর্শন করা হয়। এদের অলীক সম্পদ/অসমন্বিত ব্যয় নামেও অভিহিত করা হয়।

তবে, আধুনিক হিসাববিজ্ঞানে এসব বিষয়কে সম্পত্তি হিসেবে প্রদর্শন না করে "প্রাথমিক খরচাবলি" কে খরচ হিসেবেই, ঋণপত্রের অবহারকে - বিপরীত দায় হিসেবে এবং শেয়ার অবহার ও লাভ-ক্ষতি হিসাবের ডেবিট জেরকে — মালিকানাস্বত্ব থেকে বাদ দিয়ে দেখানো হয়।

কোম্পানির সমাপনি দাখিলাঃ
১. আয় হিসাবসমূহ বন্ধ করে আয় সারাংশ হিসাবে স্থানান্তরের জন্য,

প্রতিটি আয়/রাজস্ব হিসাব — ডেবিট
আয় সারাংশ হিসাব — ক্রেডিট

২. ব্যয় হিসাবসমূহকে বন্ধ করে আয় সারাংশ হিসাবে স্থানান্তরের জন্য,

আয় সারাংশ হিসাব — ডেবিট
প্রতিটি ব্যয় হিসাব— ক্রেডিট

৩. আয় সারাংশ হিসাব বন্ধ করে জমাকৃত মুনাফা হিসাবে স্থানান্তরের জন্য,

আয় সারাংশ হিসাব — ডেবিট
জমাকৃত মুনাফা হিসাব — ক্রেডিট

আর, আয় সারাংশ হিসানের ডেবিট জের হলে নীট ক্ষতি বুঝায়। এক্ষেত্রে জাবেদা হবে,

জমাকৃত মুনাফা হিসাব — ডেবিট
আয় সারাংশ হিসাব — ক্রেডিট

৪. লভ্যাংশ হিসাব বন্ধ করে জমাকৃত মুনাফা হিসাবে স্থানান্তরের জন্য,

জমাকৃত মুনাফা হিসাব — ডেবিট
লভ্যাংশ হিসাব — ক্রেডিট

এডমিশনে প্রশ্নের ধরণঃ
*একটি লেনদেন দিয়ে তার প্রভাব জানতে চাওয়া হবে।
*বিবিধ( যেকোন গুরুত্বপূর্ণ মুখস্থনির্ভর তথ্য জানতে চাওয়া হবে)।

তোমাদের জন্য,
১. প্রদেয় লভ্যাংশ হলো_
ক) চলতি দায়
খ) দীর্ঘমেয়াদি দায়
গ) অস্পর্শনীয় সম্পদ
ঘ) শেয়ারহোল্ডারদের স্বত্ব

২. নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করলে প্রভাবিত হয়_
ক) জমাকৃত মুনাফা বিবরণী
খ) আয় বিবরণী
গ) আর্থিক অবস্থার বিবরণী
ঘ) মালিকানাস্বত্ব বিবরণী
ঙ) ক ও গ উভয়ই

কমেন্টে শুধু উত্তর জানিয়ে দাও।

এছাড়া আর কোন প্রশ্ন থাকলে কমেন্ট করে জানিয়ে দাও। 

"সবার জন্য শুভকামনা রইলো"

মারুফ হোসেন মুন্না

মার্কেটিং বিভাগ
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

Post a Comment

0 Comments

Close Menu